কাঠবিড়ালীর কান কাঁটা

Uncategorized মজার গল্প হক কথা


এনামুল হক: এক জঙ্গলে এক সিংহরাজা মনচাহি ভাবে তার জঙ্গল জগত পরিচালনা করতো। যখন যে বিধান মন চাইতো তখন সে তাই করে বাস্তবায়ন করতো। কি করছে, কেন করছে জবাব দিহিতার কোন প্রয়োজন মনে করতো না সে। এক বার এক আইন বাস্তবায়নের জন্য জঙ্গলবাসী প্রাণীদেরকে কাতার বন্দি করা হলো। হরিণ, বানর, বন-গরু, বন বিড়াল, শিয়াল, খরগোশ, কাঠ-বিড়াল বড়-ছোট প্রাণীরা সবাই এক কাতারে। অন্য জঙ্গল থেকে এক প্রাণী এই জঙ্গলে বেড়াতে এসে এখাে ন কাতার দেখে অবাক হয়ে জিজ্ঞাসা করল আপনাদের এ অবস্থার কি কারণ? তাদের এক জন জবাব দিল, জনাব আমাদের জঙ্গলের মহারাজ একটি নতুন আইন করেছে-যেপশুর কান দুই ইঞ্চির চেয়ে বড় তাদের দুই ইঞ্চির বেশী অংশ কান কেটে দেওয়া হবে। মেহমান অবাক হয়ে জিজ্ঞাসা করলো- এতে লাভ ক্ষতি কি? তারা বলল লাভ ক্ষতির বিষয়ে আমরা জানি না, রাজাই বলতে পারেন এর লাভ ক্ষতি। এই জঙ্গলের রাজার কান্ডে বিষ্মিত এই মেহমান প্রাণ্।ী তার নজরে পড়লো কাঠ বিড়ালীর দিকে। কাঠ বিড়ালকে বেশ ভীত মনে হচ্ছিল। মেহমান প্রাণী কাঠবিড়ালীকে ডেকে বলল ছোট্ট বন্ধু তুমি এত ভয় পাচ্ছ কেন? তোমার কানতো দুই ইঞ্চির চেয়ে অনেক ছোট। কাঠবিড়ালী এবার মেহমানকে বলছে – ভাই আমি ভয়ে আছি এর যথেষ্ট কারণ আছে। কারণ রাজার সামনে প্রাণীরা গেলে আগে কান কাটে, পরে মাপে দুই ইঞ্চি না বেশী। জবাব শুনে মেহমান খুব দ্রুত এই জঙ্গল ত্যাগ করলো; কারণ ন্যায় বিচারের অভাব যে এলাকায় সে এলাকা কারও জন্য নিরাপদ নয়।
উপদেশঃ
পৃথিবীতে আজ কি ঘটছে? পিটিয়ে মানুষ মারার পরে বিবেচনা করে লোকটি হিন্দু না মুসলমান, ছেলে ধরা না গার্ডিয়ান, নিজ দলের লোক না বিরুধী- খৃষ্টান না ইহুদী। এই পৃথিবীতে আমি কতটা নিরাপদ। সত্যিই ভাববার বিষয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.