ছাত্রদের প্রতি উস্তাদের দরদ

সোশ্যাল মিডিয়া থেকে হক কথা

মুফতি ইয়াকুব আল হোসাইনীঃ উস্তাদ, জামিয়া কারিমিয়া রামপুরা,ঢাকা ।

প্রাণপ্রিয় প্রতিষ্ঠান জামিয়া কারিমিয়া আরাবিয়ায় আছি।জামিয়ার প্রত্যেকটি বালুকণা আমাকে চিনে আমিও জামিয়ার প্রত্যেকটি বালুকণা কে চিনি। তার কারন হচ্ছে, এই জামিয়ায় আমার জীবনের ১৫ টি বছর অতিবাহিত করলাম। ৮ বছর তালিবুল ইলম হিসাবে, আর ৭ বছর খাদিমুত তালাবা হিসেবে। যখন ছাত্র ছিলাম তখন বুঝতে পারিনি একজন উস্তাদ ছাত্রদেরকে কী পরিমান ভালবাসেন।এখন যখন ওস্তাদ হলাম তখন হাড়ে হাড়ে টের পাচ্ছি যে,একজন উস্তাদ ছাত্রদেরকে কী পরিমান ভালোবাসেন। আমিও আমার প্রাণপ্রিয় ছাত্রদেরকে অনেক অনেক ভালোবাসি, তার একটি প্রমাণ হলো উস্তাদ হওয়ার পরে এই সাতটি বছরের কোন একটি বছরও ছাত্রদেরকে কান্নাকাটি করা ছাড়া বিদায় জানাতে পারিনি, আমার প্রাণপ্রিয় ছাত্ররা যারা আমার রুমে এপর্যন্ত অবস্থান করেছে তারা কিছুটা হলেও উপলব্ধি করতে পেরেছে। প্রাণপ্রিয় প্রতিষ্ঠানে ছাত্রদেরকে ছাড়া আমার আর এক মুহূর্তও ভালো লাগছেনা। হে আল্লাহ !বিশ্বটাকে করোনা মুক্ত করে আমার প্রাণপ্রিয় ছাত্রদেরকে আমার কাছে আবার ফিরিয়ে দাও। মৃত্যু কার কোন সময় হবে কেউ জানেনা। একমাত্র আল্লাহ তায়ালাই জানেন। এই মুহূর্তে আমার অন্তরে যে ভয়টি বেশি কাজ করছে সেটি হলো, এই কারোনার পরিস্থিতির মধ্যেই যদি আমার মৃত্যু হয়ে যায় তাহলে তো আমার প্রাণপ্রিয় ছাত্ররা সবাই আমার জানাযায় উপস্থিত হতে পারবে না। হে আল্লাহ! তুমি এমনটি করো না। যদি আমার সময় শেষ হয়েই থাকে তাহলে হয়তো বিশ্বটাকে করোনা মুক্ত করে দাও অথবা আমার হায়াত করোনা মুক্ত হওয়া পর্যন্ত বাড়িয়ে দাও। যাতে আমার জানাযায় আমার সকল ছাত্ররা উপস্থিত থেকে আমাকে চির বিদায় দিতে পারে, যা আমার জীবনের বড় একটি স্বপ্ন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.