তুরস্ক-গ্রিসে শক্তিশালী ভূমিকম্প, নিহত বেড়ে ২২

আর্ন্তজাতিক

তুরস্কে ও গ্রিসে আঘাত হানা শক্তিশালী ভূমিকম্পে এখন পর্যন্ত নিহতের সংখ্যা বেড়ে ২২ জনে দাঁড়িয়েছে। এতে আহত হয়েছে ৮০০ জনের বেশি।

কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ভূমিকম্পে তুরস্কের পশ্চিম উপকূলীয় অঞ্চলে ২০ জনের প্রাণহানি ঘটে। অন্যদিকে গ্রিসের সামোস দ্বীপে একটি দেয়াল ধসে নিহত হয়েছে দুইজন।

ইজমিরের মেয়র সিএনএনকে জানিয়েছে, সেখানে ভূমিকম্পের ফলে ২০টি বিল্ডিং বিধ্বস্ত হয়েছে। বিভিন্ন ছবিতে দেখা গেছে, ধসে পড়া বিল্ডিংয়ের নিচে অনেক গাড়ি ভেঙ্গে-চুরমার অবস্থায় আছে।

আলজারিজার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, শনিবারও উদ্ধারকর্মীরা উদ্ধারকাজ অব্যাহত রেখেছে। তুরস্কের ইজমির প্রদেশেই সবেচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সেখানে প্রায় ৩০ লাখ লোকের বসবাস।

ধ্বংসস্তুপের নিচে এখনো কতজন আটকা আছে তা নিশ্চিত নয় বলে খবরে বলা হয়েছে। কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ধ্বংসস্তুপ থেকে এখন পর্যন্ত ৭০ জনকে উদ্ধার করা হয়েছে।

গতকাল শক্তিশালী ভূমিকম্পের পর আঘাত হানে ‘ক্ষুদে-সুনামি’। এতে তুরস্কের বিভিন্ন রাস্তাঘাট প্লাবিত হয়েছে।

মার্কিন ভূ-তাত্ত্বিক জরিপসংস্থা ইউএসজিএস জানিয়েছে, তুরস্কের ইজমির প্রদেশের পশ্চিমাঞ্চলীয় উপকূল থেকে ১৭ কিলোমিটার দূরে আঘাত হানা ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৭ ।

তবে তুরস্কের ডেইলি সাবাহ’র প্রতিবেদনে ভূমিকম্পের মাত্রা ৬.৬ বলা হয়েছে। সূত্র: দৈনিক ইত্তেফাক।

Leave a Reply

Your email address will not be published.