বাড়িতে আগুন, ঘুমন্ত মনিবকে রক্ষা করলো পোষ্য টিয়া

ভিন্ন খবর

মনিব ঘুমাচ্ছিল। তাই কিছুই বুঝতে পারেনি। পোড়া গন্ধও নাকে আসেনি। হঠাৎই তার নাম ধরে ডাকতে থাকে পোষ্য টিয়া। ঘুম ভেঙে যায় ওই ব্যক্তির। তখন শোনেন ঘরে স্মোক ডিটেক্টর বেজে উঠেছে। ঘরের পিছনে তাকিয়ে দেখেন আগুন।

আর দেরি করেননি অ্যান্টন এনগুয়েন। পোষ্য এরিককে নিয়ে এক ছুট দেন। সিঁড়ি দিয়ে নেমে আসেন নীচে। কোনও মতে রক্ষা পায় প্রাণ। এরিক না থাকলে কি হতো এখনও ভাবলে শিউরে উঠছেন অ্যান্টন। মঙ্গলবার (৩ নভেম্বর) অস্ট্রেলিয়ার ব্রিসবেনে ঘটে এই ঘটনা।
 
অ্যান্টন এনগুয়েন রাতে যখন ঘুমোচ্ছিলেন তখন বাড়িতে আগুন লাগে। আগুন লাগলেও সতর্ক করার যন্ত্র স্মোক ডিটেক্টর তখনও ডেকে ওঠেনি। তার আগেই সতর্ক করে দিয়ে এরিক। এরিক অ্যান্টনের পোষ্য টিয়া। সে ক্রমাগত নাম ধরে ডেকে গেছে তার মনিবকে। তাতেই প্রাণরক্ষা হয় দু’‌জনের। খবর পেয়েই এসে পৌঁছায় দমকলকর্মীরাও। যার ফলে রক্ষা পেয়ে যায়  আশপাশের বাড়ি। তবে কীভাবে আগুন লাগলো জানা যায়নি। গত বছর নিউ ইয়র্কে এভাবেই আগুন থেকে পরিবারকে বাঁচায় ১১ বছরের এক পিটবুল কুকুর। পরিবারের সকলে ঘুমাচ্ছিলেন তখন। সেই বেসমেন্টে গ্যাসের গন্ধ পেয়ে সতর্ক করে সদস্যদের। সূত্র: বাংলাদেশ প্রতিদিন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.