ভুল-শুদ্ধ- রোজা অবস্থায় বমি হলে

আমাদের ইসলাম মাসায়েল শিক্ষা সাহরী ও ইফতারের সময়

ভুল- রোজা রাখা অবস্থায় বমি হলে রোজা ভেঙ্গে যাবে।

শুদ্ধ-
১। রোজা রাখা অবস্থায় অনিচ্ছাকৃত বমি আসলে রোজার কোন ক্ষতি হবে না। বমি অল্প হউক বা বেশী।
২। ইচ্ছাকৃত (গলায় আঙ্গুল বা অন্য কিছু ঢুকিয়ে) কেউ বমি করলে তা মুখ ভরে না হলে রোজার কোন ক্ষতি হবে না।
৩। ইচ্ছাকৃত কেউ বমি করলে তা মুখ ভরে হলে রোজা হালকা হবে, তবে ভাঙ্গবে না।
৪। মুখে চলে আশা বমি আবার গিলে ফেললে রোজা ভেঙ্গে যাবে।

বিধানঃ এভাবে রোজা ভাংলে পরবর্তিতে শুধু একটি রোজার কাজা আদায় করলেই হবে লাগাতার ৬০টি কাফফারা করতে হাবে না। বমির কারনে রোজা ভেঙ্গে গেছে মনে করে যদি কেউ ইচ্ছাকৃত পানাহার করে নেয় তাহলে। তাকে একটি কাজা ও ৬০টি কাফফারা রোজা আদায় করতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.