রোজা নিয়ে মজার গল্প

আমাদের ইসলাম জোকস মজার গল্প

১। এক যুবক দীর্ঘদিন ইংলেন্ড থেকে লেখা পড়া শিখে ‍উচ্চ শিক্ষিত হয়ে দেশে ফিরেছে। বাংলাদেশে ফিরে আসার কয়েক দিনে পড়েই রমজান মাস আরম্ভ হয়ে যায়। যুবক রমজান মাসের দিনের বেলায় দেদারছে পানাহার করতে থাকে। ছেলের কান্ড দেখে তার বাবা ছেলেকে ডেকে বলছে, তুমি রমজান মাসেে এভাবে দিনের বেলায় খেতে পার না। এ বিরাট অন্যায়, অনেক গুনাহ।ছেবে বাবাকে বলছে, আমি জানুয়ারী থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত ১২ মাসেরই নাম শিখেছি। ১২ মাসের মধ্যে রমজান বলতেতো কোন মাস দেখি নি। রমজান মাস আবার কি? বাবা ছেলেকে রমজান মাস সম্পর্কে হাদীস কুরআন থেকে কিছু তথ্য শোনালেন। এভাবে ছেলের ভুল ভংলো এবং রোজা রাখার অভ্যাস করতে থাকলো।

২। এক মাওলানা সাহেব এক লোককে জিজ্ঞাসা করলেন, ভাইকী কোন রোজা ভেঙ্গেছেন? লোকটি উত্তর দিল এই তো ২৫,৩০টার মতো ভেঙ্গেছি।মাওলানা বললেন, ছিলইতো ২৫,৩০টা রাখলেন কি? আগামীতে সব রাখবেন। রোজা ভাঙ্গা বিরাট অপরাধ।মাওলানা সাহেব লোকটিকে রোজা রাখার ফজিলত বললেন, রোজা ভাঙ্গার অপরাধ সম্পর্কে কোরআন হাদীসের বক্তব্য শোনালেন। লোকটি নিজের ভুল বুঝতে পারলো এবং আগামীতে আর রোজা না ভঙ্গার অঙ্গিকার করলো।

৩। এক মাওলানা সাহেব এক লোককে জিজ্ঞাসা করলেন, ভাইকী কোন রোজা ভেঙ্গেছেন? লোকটি উত্তর দিল এইতো ১টি ভেঙ্গেছি। মাওলানা সাহেব আবার বললেন, আর উনত্রিশটিতো রেখেছেন? লোকটি বলল বাকীগুলোতো রাখিই নি।একটি রেখেছিলাম একটিই ভেঙ্গেছি।মাওলাসা সাহেবের বুঝতে বাকী রইল না সে কয়টি রোজা রেখেছে। মাওলানা তাকেও বুঝিয়ে রোজা রাখার ওয়াদা করালেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.