শনাক্তে চীনকে ছাড়ালেও বাংলাদেশে মৃত্যু ৭৫ শতাংশ কম

করোনা অলটাইম দেশের খবর

দেশে গতকাল শনিবার সকাল পর্যন্ত করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে মোট ৮৪ হাজার ৩৭৯ জনের। শনাক্তের এই সংখ্যায় চীনকে ছাড়িয়ে গেছে বাংলাদেশ। তবে আশার কথা হচ্ছে, চীনে এ পর্যন্ত মোট ৮৩ হাজার ৭৫ জন আক্রান্ত হলেও মৃত্যু হয়েছে চার হাজার ৬৩৮ জনের। আর বাংলাদেশে এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে এক হাজার ১৩৯ জনের, যা চীনের মৃত্যুর চার ভাগের এক ভাগ (৭৫ শতাংশ কম)। যদিও সময় হিসাবে চীনে সংক্রমণ শুরু হয় গত বছর মধ্য ডিসেম্বরে আর বাংলাদেশে প্রথম শনাক্ত হয় চলতি বছরের ৮ মার্চ। আক্রান্তের হিসাবে ওয়ার্ল্ডোমিটারের তালিকায় গতকাল চীনকে পেছনে ফেলে ১৮ নম্বরে উঠে এসেছে বাংলাদেশ। তবে মৃত্যুর তালিকায় বাংলাদেশ এখনো বিশ্বের অনেক দেশ থেকে দূরে অবস্থান করছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের বুলেটিনে জানানো হয়, গতকাল সকাল পর্যন্ত পূর্ববর্তী ২৪ ঘণ্টায় করোনায় দেশে আরো ৪৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। আর নতুন শনাক্ত হয়েছে দুই হাজার ৮৫৬ জন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা বুলেটিনে জানান, সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ১৩ হাজার ৬৩৮টি। সব মিলিয়ে দেশে নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা চার লাখ ৮৯ হাজার ৯০৭। এই ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছে ৫৭৮ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছে ১৭ হাজার ৮২৭ জন।

বুলেটিনে আরো জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে যারা মারা গেছে তাদের মধ্যে ৩৩ জন পুরুষ, ১১ জন নারী। এদের মধ্যে ৮১-৯০ বছরের তিনজন, ৭১-৮০ বছরের মধ্যে সাতজন, ৬১-৭০ বছরের ১১ জন, ৪১-৫০ বছরের পাঁচজন, ৫১-৬০ বছরের ১১ জন, ৩১-৪০ বছরের ছয়জন, ২১-৩০ বছরের একজন। মৃতদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ১৯ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ১৩ জন, সিলেট বিভাগে দুজন, রাজশাহী বিভাগে চারজন, খুলনায় একজন, রংপুর বিভাগে একজন এবং বরিশাল বিভাগে চারজন। এর মধ্যে হাসপাতালে মারা গেছে ২৭ জন আর বাসায় মারা গেছে ১৪ জন। হাসপাতালে মৃত অবস্থায় আনা হয়েছে তিনজনকে।

বুলেটিনের তথ্যানুসারে, এই ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে গেছে ৪৯৬ জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছে ৯ হাজার ৩৪০ জন। এই ২৪ ঘণ্টায় কোয়ারেন্টিনে নেওয়া হয়েছে দুই হাজার ৪১৪ জনকে। বর্তমানে কোয়ারেন্টেনে আছে মোট ৬০ হাজার ৭৮৫ জন।

-এন

Leave a Reply

Your email address will not be published.